Monday, February 13, 2017

Bandarban tour

কিছুদিন আগেই ঘুরে এলাম বান্দরবানের কিছু অপরূপ সৌন্দর্যের মাঝে থেকে। সেই ভ্রমণ নিয়েই বিস্তারিত আলোচনা করার জন্য এই পোস্টটি লেখা। এখানে আমাদের প্লান, খরচ, সব হিসাব দিয়ে দিবো। কেউ উপকৃত হলে পোস্ট টি স্বার্থক। খুব চ্যালেঞ্জিং, এডভেঞ্চার আর বাংলাদেশের অপরূপ সৌন্দর্যের মুখোমুখি একটি ভ্রমণ ।
আমরা বন্ধুরা ছিলাম ১০ জন। আর ১০ জনের জন্য পারফেক্ট ট্যুর আর ট্যুরের জন্য ১০ জনই পারফেক্ট এর কম/বেশি হলে খরচের হিসাব ভালোই কম/বেশি হবে।
সময়ঃ ৪ দিন ৩ রাত
সদস্যঃ ১০ জন
বাজেটঃ ৬০০০/- (আমাদের ছিলো)
স্পটঃ নীলগিরি, আমিয়াখুম, সাতভাইখুম, নাফাখুম, স্বর্ণমন্দির...
উপকরণঃ
★★★ যার যার ন্যাশনাল আইডি কার্ড (যদি থাকে) আর না থাকলে যে কা
সবার কাছে ১০০ টাকার কমপক্ষে ১০ টা নোট (১০০০/-) রাখা দরকার, ভাঙতি নিয়ে নাইলে ঝামেলা পোহাইতে হয়....
আর যা যা নিতে হবেঃ
১। চার্জার
২। পাওয়ার ব্যাংক (যার যার আছে)
৩। শীতের কাপড়
৪। কার্ড/টুকটাক সময় পাসের মত কিছু (গেম)
৫। মোবাইলে পর্যাপ্ত টাকা (যদিও নেটওয়ার্ক পাই নি)
৬। প্রাথমিক কিছু ওষুধ নিলে ভালো হয় (একজন নিলেই হয় - যেমন ব্যথার, বমির, বদ হজমের....)
৭। মাল্টিপ্লাগ (যার যার কাছে এক্সট্রা আছে)
৮। শুকনো খাবার তবে পেট ভরার মত (উদাহরণস্বরূপ কেক, রুটি, )
৯। ট্রাভেল ব্যাগ ছাড়াও ছোট আরেকটি সহজে বহনযোগ্য ব্যাগ যাতে করে পানি, ওষুধপত্র বহন করতে পারে
১০। *** পানির বোতল। সবার সাথে ছোট ব্যাগ ও ব্যাগে কমপক্ষে ১ লিটার পানি থাকা আবশ্যক। (পানির বোতল ৫০০মিলি করে দুইটা)
১১। ম্যালেরিয়ার মলম, টিস্যু, স্যাভলন
১২। *** বেল্টয়ালা জুতা, শর্টস, কোয়ার্টার প্যান্ট, পলিথিন (জামা ভিজে গেলে/ ভেজাতে হলে সেগুলো নেওয়ার জন্য)
১৩।রোদ থেকে বাচতে হ্যাট এবং রোদচশমা
১৪। *** স্যালাইন, গ্লুকোজ, চকলেট
১৫। টর্চ
১৬। Tissue, Sanitizer (বাথরুমের অনেক সমস্যা পোহাতে হবে)
১৭। মোজা, কানটুপি, চাদর,মাফলার ইত্যাদি শীতবস্ত্র
১৮। ব্যান্ডেজ, স্কচটেপ,
১৯। লবণ (জোকের জন্য)
                                                                          নাফাকুম

গজ টা আছে, মানে পরিচয়পত্র.... ★★★
আমাদের ট্যুর প্লান , খরচ সহ (এখানে আমাদের ১০ জনের টোটাল খরচের হিসাব দেওয়া হলোঃ
১ম দিন =>
আগের দিন রাতে ডলফিন চেয়ার কোচে কমলাপুর থেকে ডলফিন চেয়ার কোচে বান্দরবান এর উদ্দেশ্যে রওনা দেই।
ঢাকা - বান্দরবান = ৬০০০/- (বাস)
বান্দরবান - নীলগিরি - থানচি = ৫০০০/- (চান্দের গাড়ী)
নীলগিরিতে টিকেট + গাড়ি পার্কিং = ৮০০/- (৫০০/- + ৩০০/-)
থানচি তে আমরা আমাদের গাইডের সাথে সাক্ষাৎ করি এবং তাকে এর পর সাথে নিয়ে ঘোরা শুরু হয়। আর থানচি থানাতে আমাদের সবার পরিচয় পত্র দিতে হয় ও ছবি নিয়ে রাখে।
থানচি - পদ্মমুখ/পদ্মঝিরি = ২০০০/- (২ টা নৌকা, ১০০০/- করে)
পদ্মমুখ থেকে ট্রাকিং শুরু হয়। থুইসাপাড়ার উদ্দেশ্যে হাঁটলেও পথিমধ্যে সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ায় রাত টা হরিশ্চন্দ্রপাড়াতে থাকি।
সেখানে রাতে খাওয়ার জন্য মুরগি = ১৩০০/- (৪০০/- কেজি)
রাতে খাওয়া + থাকা + সকালে খাওয়া = ১৯০০/- (সবার জন্য রাতে থাকা ১৫০/- করে নিয়ম হলেও আমরা ১২০/- তে ম্যানেজ করেছিলাম)
২য় দিন =>
হরিশচন্দ্রপাড়া থেকে হাঁটতে হাঁটতে আমরা যাই থুইসাপাড়া। আমাদের মধ্যে ৩ জন যায় আমিয়াখুম, সাতভাইখুম দেখতে। আর বাকিরা রেমাক্রী খালে গোসল করে সময় কাটায়।
থুইসাপাড়া দুপুরে খাওয়া = ১৫০০/- (ভাত, মুরগি, ডিম, ডাল)
এর পর আবার বিকালে সবাই একসাথে হলে রাতে যাই জিনাপাড়া তে।
সেখানে গাইড (আমিয়াখুম এর আলাদা গাইড নিতে হয়েছিলো) + থাকা + মুরগি + মসলা = ৩১০০/-
৩য় দিন =>
জিনাপাড়া রাতে থেকে সকালে হাল্কা চা বিস্কিট খেয়ে পথে কিছু খাওয়ার জন্য আরো কিছু বিস্কিট কেনা কাটা করে বের হই । হাঁটতে হাঁটতে নাফাখুম গেলাম। সেখান থেকে আবার হাঁটতে হাঁটতে রেমাক্রী। সেখান থেকে নৌকা পেলাম।
রেমাক্রী - থানচি = ৫০০০/- (২ টা নৌকা, ২৫০০/- করে)
থানচি এসে গাইড কে বিদায় দেই। যদিও গাইডের সাথে কথা ছিলো ৬০০০ এর, কিন্তু ব্যবহার অত্যন্ত ভালো থাকায় আর অনেক মিশুক হওয়ায় তাকে ভালো লাগাতে, ৭০০০/- দেওয়া হয়।
গাইড = ৭০০০/-
থানচি বাজারে রাতে থাকা = ১০০০/-
৪র্থ দিন =>
থানচি - বান্দরবান = ৬০০০/- (বান্দরবানের আশে পাশে নীলাচল, মেঘলা, স্বর্ণমন্দির সব ঘুরিয়ে নিতে ৭০০০/- চেয়েছিলো। কিন্তু আমাদের কাছে ব্যাক করার টিকেট না থাকায় আমরা সরাসরি ৬০০০/- দিয়ে বান্দরবান যাই। চান্দের গাড়িতে)
বান্দরবান - স্বর্ণমন্দির = ৬০০/- (২ টা রিজার্ভ অটো, আপ ডাউন)

                                                                        নীলগিরি

স্বর্ণমন্দির এ টিকেট + জুতা রাখা = ৩৫০/- (৩০০/- + ৫০/-)
আমাদের ভ্রমণটা আরো পরিপূর্ণ করতে ট্রেন জার্নি টাও করতে চাচ্ছিলাম। তাই,
বান্দরবান - চট্টগ্রাম = ১১০০/- (পূর্বাণী বাসে)
চট্টগ্রাম - রেল ষ্টেশন = ১০০/- (লেগুনা, ১০/- করে)
চট্টগ্রাম - ঢাকা = ৩৫০০/- (ট্রেন)
*** মোট = ৪৬২৫০/- (১০ জন)
যা একেকজন ৪৬২৫/-
আর অন্যান্য খাবার দাবার ছাড়া খরচ টা ধরা হয়েছে, তো সেই হিসাবে ৫৫০০/- এর মধ্যেই বলা যায় আমাদের ট্যুর সফল।
সাবধানতাঃ
-> যত হালকা ব্যাগ নেওয়া যায়
-> অবশ্যই নখ কাটা (পায়ের নখ যাতে না উলটে)
-> জিন্সের বদলে ট্রাউজার
-> বাঙালি গাইড পরিহার (বাঙালি গাইড মাতাল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে)
-> ***টাকা কমপক্ষে ৭হাজার। বিকাশ এর ব্যবস্থা
-> মুরগি কাটার সময় হালাল করে নেওয়া (নিজ উদ্যোগে)
-> খুব বেশি হাঁটতে হবে তাই সেই রকম এনার্জী বুঝে।


লেখক=জায়েদ হাসান